Home > Songs > প্রেম

প্রেম

চিত্ত পিপাসিত রেআমার মনের মাঝেকাহার গলায় পরাবি
যে ছায়ারে ধরবগানগুলি মোর শৈবালেরইতোমায় গান শোনাব
গানের ডালি ভরেওরে আমার হৃদয়কাল রাতের বেলা
মনে রবে কি না রবেআকাশে আজ কোন্নিদ্রাহারা রাতের এ গান
আমার কণ্ঠ হতেযায় নিয়ে যায়দিয়ে গেনু বসন্তের
গান আমার যায়সময় কারো যেএই কথাটি মনে রেখো
আসা-যাওয়ার পথের ধারেগানের ভেলায় বেলাঅনেক দিনের আমার
পাখি আমার নীড়েরছুটির বাঁশি বাজল যেবাঁশি আমি বাজাই
তোমার শেষের গানের রেশআমার শেষ রাগিণীরপাছে সুর ভুলি
বিরস দিন বিরলবাজিল কাহার বীণা মধুরসবার সাথে চলতেছিল
আমার পরান লয়ে কীসুন্দর হৃদিরঞ্জন তুমিআমারে করো তোমার
ভালোবেসে, সখী, নিভৃতেওগো কাঙাল, আমারেতুমি সন্ধ্যার মেঘমালা
কত কথা তারেসুনীল সাগরের শ্যামলহে নিরুপমা, গানে
অজানা খনির নূতনআজি এ নিরালাফিরে যাও কেন
আমার জীবনপাত্র উচ্ছলিয়াজানি জানি তুমিহে সখা বারতা
যদি জানতেম আমার কিসেরআমি যে আরআমার নয়ন তব
আমরা দুজনা স্বর্গ-খেলনাআরো কিছুখন নাহয়এখনো কেন সময়
আজি গোধূলিলগনে এইআমি চাহিতে এসেছিধরা দিয়েছি গো
কী রাগিণী বাজালেওগো শোনো কেবড়ো বেদনার মতো
আমার মন মানেমরি লো মরিএবার উজাড় করে
সখী, প্রতিদিন হায়তুমি রবে নীরবেতোমার গোপন কথাটি
এসো আমার ঘরেঘুমের ঘন গহনমম রুদ্ধমুকুলদলে এসো
এসো এসো পুরুষোত্তমআমার নিশীথরাতের বাদলধারাএকলা ব'সে হেরো
কেটেছে একেলা বিরহেরদে পড়ে দেরাতে রাতে আলোর
অনেক কথা বলেছিলেমজানি তোমার অজানাপুরানো জানিয়া চেয়ো
আমার যদি বেলাচপল তব নবীনজয়যাত্রায় যাও গো
বিজয়মালা এনো আমারআন্‌মনা, আন্‌মনাওলো সই, ওলো
হৃদয়ের এ কূল,না বলে যেয়োআর নাই রে
বেদনায় ভরে গিয়েছেআমি চিনি গোযা ছিল কালো
আহা তোমার সঙ্গেআমার সকল নিয়েআমি রূপে তোমায়
আমি তোমার প্রেমেআমার নয়ন তোমারফুল তুলিতে ভুল
চাঁদের হাসির বাঁধ ভেঙেছে,তুমি একটু কেবলওগো, তোমার চক্ষু
হে নবীনা, প্রতিদিনের পথেরওগো, শান্ত পাষাণমুরতিতোমার পায়ের তলায়
অনেক পাওয়ার মাঝেদিনশেষের রাঙা মুকুলআছ আকাশ-পানে তুলে
না, না গোচৈত্রপবনে মন চিত্তবনেনূপুর বেজে যায়
আরো একটু বসোবর্ষণমন্দ্রিত অন্ধকারে এসেছিমেঘছায়ে সজল বায়ে
গোধূলিগগনে মেঘে ঢেকেছিলআমার প্রাণের মাঝেতোমার মনের একটি
উদাসিনী -বেশে বিদেশিনীআমি যাব নাখোলো খোলো দ্বার,
বাজিবে, সখী, বাঁশিকে বলেছে তোমায়,সে আমার গোপন
এ কী সুধারসও যে মানেমান অভিমান ভাসিয়ে
তোমারেই করিয়াছি জীবনেরযদি বারণ করকেন বাজাও কাঁকন
কেন যামিনী নানিশি না পোহাতেঅলকে কুসুম না
নিশীথে কী কয়েমোর স্বপন-তরীর কেভালোবাসি, ভালোবাসি
এবার মিলন-হাওয়ায়তোমার রঙিন পাতায়আজ সবার রঙে
এই বুঝি মোরআমার দোসর যেআমার লতার প্রথম
দুঃখ দিয়ে মেটাবএকদিন চিনে নেবেমম যৌবননিকুঞ্জে গাহে পাখি--
আহা, জাগি পোহালোসে আসে ধীরে,পুষ্পবনে পুষ্প নাহি
আমার পরান যাহাআমি নিশিদিন তোমায় ভালোবাসিসখী, ওই বুঝি বাঁশি
ওরে, কী শুনেছিস ঘুমেরকার চোখের চাওয়ার হাওয়ায়অনেক কথা যাও
না বলে যায়তবে শেষ করেসখী, আমারি দুয়ারে
তবু মনে রেখোতুমি যেয়ো নাআকুল কেশে আসে,
কে দিল আবারনা না নাই বা এলেজয় ক'রে তবু
কাঁদালে তুমি মোরেআমার মনের কোণেরমুখপানে চেয়ে দেখি,
স্বপনে দোঁহে ছিনুমিলনরাতি পোহালোহে ক্ষণিকের অতিথি
হায় অতিথি, এখনিমুখখানি কর মলিনওকে বাঁধিবি কে
সকালবেলায় আলোয় বাজেশেষ বেলাকার শেষেরকাঁদার সময় অল্প
কেন রে এতইজানি, জানি হলআমার যাবার বেলায়
কে বলে 'যাওকেন আমায় পাগলযদি হল যাবার
ক্লান্ত বাঁশির শেষকখন দিলে পরায়েযাবার বেলা শেষ
জানি তুমি ফিরেনা রে, নাতোর প্রাণের রস
মরণ রে, তুঁহুউতল হাওয়া লাগলনা না না
তোরা যে যাও আমার ধ্যানেরইহায় রে, ওরে
ওহে সুন্দর, মমকে আমারে যেনসেদিন দুজনে দুলেছিনু
সেই ভালো সেইকাছে যবে ছিলআমার প্রাণের 'পরে
মনে রয়ে গেলওগো আমার চির-অচেনাকোথা হতে শুনতে
পান্থপাখির রিক্ত কুলায়বাজে করুণ সুরেজীবনে পরম লগন
সখী, তোরা দেখেআমি আশায় আশায়আমার নিখিল ভুবন
না না, ভুলভুল করেছিনু ভুলডেকো না আমারে,ডেকো
যে ছিল আমারহায় হতভাগিনী, স্রোতেকোন্ সে ঝড়ের
ছি ছি, মরিশুভ মিলনলগনে বাজুকআর নহে, আর
ছিন্ন শিকল পায়েযাক ছিঁড়ে, যাক ছিঁড়েদুঃখের যজ্ঞ-অনল-জ্বলনে
আমার মন কেমনগোপন কথাটি রবেবলো সখী, বলো
অজানা সুর কেধরা সে যেকোন্ বাঁধনের গ্রন্থি
ওগো কিশোর, আজিতুমি কোন্ ভাঙনেরআমি তোমার সঙ্গে
এই উদাসী হাওয়ারবসন্ত সে যায়মম দুঃখের সাধন
বাণী মোর নাহিআজি দক্ষিণপবনে দোলাযদি হায় জীবন
আমার আপন গানঅধরা মাধুরী ধরেছিআমি যে গান
ওগো পড়োশিনি, শুনিওগো স্বপ্নস্বরূপিণী, তবওরে জাগায়ো না,
দিনান্তবেলায় শেষের ফসলধূসর জীবনের গোধূলিতেদোষী করিব না
দৈবে তুমি কখনভরা থাক্ স্মৃতিসুধায়ওকে ধরিলে তো
কেন ধরে রাখা,ও চাঁদ, চোখেরহায় গো, ব্যথায়
তোমার বীণায় গানতার হাতে ছিলকেন নয়ন আপনি
আজি যে রজনীএমন দিনে তারেসকরুণ বেণু বাজায়ে
এ পারে মুখররোদনভরা এ বসন্তএসো এসো ফিরে
তোমার গীতি জাগালোযুগে যুগে বুঝিবনে যদি ফুটল
ধূসর জীবনের গোধূলিতেআমার জ্বলে নিনীলাঞ্জনছায়া, প্রফুল্ল কদম্ববন,
ফিরবে না তাদিনের পরে দিন-যেনা চাহিলে যারে
বিরহ মধুর হলফিরে ফিরে ডাক্প্রভাত-আলোরে মোর কাঁদায়ে
নাই যদি বাশ্রাবণের পবনে আকুলসে যে পাশে
কোন্ গহন অরণ্যেকাছে থেকে দূরঅশান্তি আজ হানল
স্বপ্নমদির নেশায় মেশাশুনি ক্ষণে ক্ষণেদিন পরে যায়
আমার ভুবন তোযখন এসেছিলে অন্ধকারেএ পথে আমি-যে
মনে কী দ্বিধাকী ফুল ঝরিললিখন তোমার ধুলায়
আজি সাঁঝের যমুনায়সখী, আঁধারে একেলাযখন ভাঙল মিলন-মেলা
আমার এ পথএকলা ব'সে একেতার বিদায়বেলার মালাখানি
আমি এলেম তারিদীপ নিবে গেছেতুমি আমায় ডেকেছিলে
সে যে বাহিরকবে তুমি আসবেজাগরণে যায় বিভাবরী--
নাই নাই নাইএকদা তুমি, প্রিয়ে,আমার একটি কথা
ও দেখা দিয়েকেন সারা দিনকী সুর বাজে
গহন ঘন বনেকে উঠে ডাকিওগো কে যায়
হেলাফেলা সারা বেলাওগো এত প্রেম-আশাআমি নিশি নিশি
কখন যে বসন্তবাঁশরি বাজাতে চাহি,পথিক পরান, চল্
তুই ফেলে এসেছিসযে দিন সকলআমায় থাকতে দে-না
হে বিরহী, হায়ওগো সখী, দেখিসখা, বহে গেল
ওলো রেখে দেতারে দেখাতে পারিএ তো খেলা
দিবস রজনী, আমিঅলি বার বারদূরের বন্ধু সুরের
আমার মন চেয়েবিনা সাজে সাজিবাহির-পথে বিবাগি হিয়া
এলেম নতুন দেশেঝড়ে যায় উড়েপূর্ণ প্রাণে চাবার
লুকালে ব'লেই খুঁজেঘরেতে ভ্রমর এলকোথা বাইরে দূরে
দে তোরা আমায়তোমার বৈশাখে ছিলআমার এই রিক্ত
আমার অঙ্গে অঙ্গেকোন্ দেবতা সে, কীনারীর ললিত লোভন
ওরে চিত্ররেখাডোরে বাঁধিলচিনিলে না আমারেকঠিন বেদনার তাপস
সব কিছু কেননীরবে থাকিস, সখী,প্রেমের জোয়ারে ভাসাবে
জেনো প্রেম চিরঋণীকোন্ অযাচিত আশারযদি আসে তবে
আমার মন বলে,আমি ফুল তুলিতেপ্রাণ চায় চক্ষু
দ্বারে কেন দিলেতুমি মোর পাওএবার, সখী, সোনার
কী হল আমার!আজি আঁখি জুড়ালোসকল হৃদয় দিয়ে
তারে কেমনে ধরিবে,ওই মধুর মুখসুখে আছি, সুখে
ভালোবেসে যদি সুখসখা, আপন মনপ্রেমের ফাঁদ পাতা
এসেছি গো এসেছিযেয়ো না, যেয়োকাছে আছে দেখিতে
জীবনে আজ কিপথহারা তুমি পথিকতুমি কোন্ কাননের
আয় তবে সহচরীআজ তোমারে দেখতেমনে যে আশা
এখনো তারে চোখেবঁধু, তোমায় করবএরা পরকে আপন
সমুখেতে বহিছে তটিনীবুঝি বেলা বহেবনে এমন ফুল
আমি কেবল তোমারআজ যেমন ক'রেযৌবনসরসীনীরে মিলনশতদল
সখী, বলো দেখিদেখে যা, দেখেনিমেষের তরে শরমে
আমি হৃদয়ের কথাওকে বল্, সখীকে ডাকে. আমি
সখী, সে গেলবিদায় করেছ যারেনা বুঝে কারে
নয়ন মেলে দেখিহাসিরে কি লুকাবিযে ফুল ঝরে
সাজাব তোমারে হেমন জানে মনোমোহনহল না লো,
ও কেন চুরিকেহ কারো মনগেল গো-- ফিরিল
বল্, গোলাপ, মোরেআমার যেতে সরে