Home > Plays > রাজা ও রানী > রাজা ও রানী
Acts: FRONT PAGE | 1 | 2 | 3 | 4 | 5 | SINGLE PAGE

রাজা ও রানী    

উৎসর্গ

শ্রীযুক্ত দ্বিজেন্দ্রনাথ ঠাকুর বড়দাদা মহাশয়ের


শ্রীচরণকমলে


এই গ্রন্থ উৎসৃষ্ট হইল


সূচনা

একদিন বড়ো আকারে দেখা দিল একটি নাটক — রাজা ও রানী । এর নাট্যভূমিতে রয়েছে লিরিকের প্লাবন , তাতে নাটককে করেছে দুর্বল । এ হয়েছে কাব্যের জলাভূমি । ঐ লিরিকের টানে এর মধ্যে প্রবেশ করেছে ইলা এবং কুমারের উপসর্গ । সেটা অত্যন্ত শোচনীয়রূপে অসংগত । এই নাটকে যথার্থ নাট্যপরিণতি দেখা দিয়েছে যেখানে বিক্রমের দুর্দান্ত প্রেম প্রতিহত হয়ে পরিণত হয়েছে দুর্দান্ত হিংস্রতায় , আত্মঘাতী প্রেম হয়ে উঠেছে বিশ্বঘাতী।


প্রকৃতির প্রতিশোধের সঙ্গে ‘রাজা ও রানী'র এক জায়গায় মিল আছে । অসীমের সন্ধানে সন্ন্যাসী বাস্তব হতে ভ্রষ্ট হয়ে সত্য হতে ভ্রষ্ট হয়েছে , বিক্রম তেমনি প্রেমে বাস্তবের সীমাকে লঙ্ঘন করতে গিয়ে সত্যকে হারিয়েছে । এই তত্ত্বকেই যে সজ্ঞানে লক্ষ্য করে লেখা হয়েছে তা নয়। এর মধ্যে এই কথাটাই প্রকাশ পাবার জন্যে স্বত উদ্যত হয়েছে যে , সংসারের জমি থেকে প্রেমকে উৎপাটিত করে আনলে সে আপনার রস আপনি জোগাতে পারে না , তার মধ্যে বিকৃতি ঘটতে থাকে । –


এরা সুখের লাগি চাহে প্রেম

প্রেম মেলে না।

শুধু সুখ চলে যায়

এমনি মায়ার ছলনা।

 

 

নাটকের পাত্রগণ

বিক্রমদেব                   জলন্ধরের রাজা


দেবদত্ত                     রাজার বাল্যসখা ব্রাহ্মণ


ত্রিবেদী                      বৃদ্ধ ব্রাহ্মণ


জয়সেন , যুধাজিৎ           রাজ্যের প্রধান নায়ক


মিহিরগুপ্ত                   জয়সেনের অমাত্য


চন্দ্রসেন                     কাশ্মীরের রাজা


কুমার                       কাশ্মীরের যুবরাজ । চন্দ্রসেনের ভ্রাতুষ্পুত্র


শংকর                       কুমারের পুরাতন বৃদ্ধ ভৃত্য


অমরুরাজ                    ত্রিচূড়ের রাজা



সুমিত্রা                       জালন্ধরের মহিষী। কুমারের ভগিনী


নারায়ণী                     দেবদত্তের স্ত্রী


রেবতী                       চন্দ্রসেনের মহিষী


ইলা                         অমরুর কন্যা । কুমারের সহিত বিবাহপণে বদ্ধ


২৮। ১। ৪০  শান্তিনিকেতন


Acts: FRONT PAGE | 1 | 2 | 3 | 4 | 5 | SINGLE PAGE