Home > Verses > খেয়া > প্রতীক্ষা

প্রতীক্ষা    


   আমি এখন সময় করেছি--

              তোমার এবার সময় কখন হবে।

        সাঁঝের প্রদীপ সাজিয়ে ধরেছি--

              শিখা তাহার জ্বালিয়ে দেবে কবে।

   নামিয়ে দিয়ে এসেছি সব বোঝা,

              তরী আমার বেঁধে এলেম ঘাটে--

   পথে পথে ছেড়েছি সব খোঁজা,

              কেনা বেচা নানান হাটে হাটে।

 

   সন্ধ্যাবেলায় যে মল্লিকা ফুটে

              গন্ধ তারি কুঞ্জে উঠে জাগি।

   ভরেছি জুঁই পদ্মপাতার পুটে

              তোমার করপদ্মদলের লাগি।

   রেখেছি আজ শান্ত শীতল ক'রে

              অঙ্গন মোর চন্দনসৌরভে।

   সেরেছি কাজ সারাটা দিন ধরে--

              তোমার এবার সময় কখন হবে।

 

   আজিকে চাঁদ উঠবে প্রথম রাতে

              নদীর পারে নারিকেলের বনে,

   দেবালয়ের বিজন আঙিনাতে

              পড়বে আলো গাছের ছায়া-সনে।

   দখিন-হাওয়া উঠবে হঠাৎ বেগে,

              আসবে জোয়ার সঙ্গে তারি ছুটে--

   বাঁধা তরী ঢেউয়ের দোলা লেগে

              ঘাটের 'পরে মরবে মাথা কুটে।

 

   জোয়ার যখন মিশিয়ে যাবে কূলে,

              থম্‌থমিয়ে আসবে যখন জল,

   বাতাস যখন পড়বে ঢুলে ঢুলে,

              চন্দ্র যখন নামবে অস্তাচল,

       শিথিল তনু তোমার ছোঁওয়া ঘুমে

              চরণতলে পড়বে লুটে তবে।

   বসে আছি শয়ন পাতি ভূমে--

              তোমার এবার সময় হবে কবে।

 

 

  কলিকাতা, ১৭ বৈশাখ, ১৩১৩