৬১    


ওই-যে সন্ধ্যা খুলিয়া ফেলিল তার

       সোনার অলংকার।

ওই সে আকাশে লুটায়ে আকুল চুল

অঞ্জলি ভরি ধরিল তারার ফুল,

       পূজায় তাহার ভরিল অন্ধকার।

ক্লান্তি আপন রাখিয়া দিল সে ধীরে

       স্তব্ধ পাখির নীড়ে।

বনের গহনে জোনাকি-রতন-জ্বালা

লুকায়ে বক্ষে শান্তির জপমালা

       জপিল সে বারবার।

ওই-যে তাহার লুকানো ফুলের বাস

       গোপনে ফেলিল শ্বাস।

ওই-যে তাহার প্রাণের গভীর বাণী

শান্ত পবনে নীরবে রাখিল আনি

       আপন বেদনাভার।

ওই-যে নয়ন অবগুণ্ঠনতলে

       ভাসিল শিশিরজলে।

ওই-যে তাহার বিপুল রূপের ধন

অরূপ আঁধারে করিল সমর্পণ

       চরম নমস্কার।

 

 

  শান্তিনিকেতন, ১৬ আশ্বিন- সন্ধ্যা, ১৩২১