বালিশ নেই, সে ঘুমোতে যায় মাথার নিচে ইঁট দিয়ে।

কাঁথা নেই; সে প'ড়ে থাকে রোদের দিকে পিঠ দিয়ে।

শ্বশুর বাড়ি নেমন্তন্ন,      তাড়াতাড়ি তারই জন্য

ছেঁড়া গামছা পরেছে সে  তিনটে-চারটে গিঁঠ দিয়ে।

ভাঙা ছাতার বাঁটখানাতে    ছড়ি ক'রে চায় বানাতে,

রোদে মাথা সুস্থ করে ঠাণ্ডা জলের ছিট দিয়ে।

হাসির কথা নয় এ মোটে,    খেঁকশেয়ালিই হেসে ওঠে

যখন রাতে পথ করে সে হতভাগার ভিট দিয়ে।