Home > Verses > কবিতা > অবসাদ

অবসাদ    


দয়াময়ি, বাণি, বীণাপাণি,

জাগাও -- জাগাও, দেবি, উঠাও আমারে দীন হীন।

ঢালো এ হৃদয়মাঝে জ্বলন্ত অনলময় বল।

দিনে দিনে অবসাদে হইতেছি অবশ মলিন;

নির্জীব এ হৃদয়ের দাঁড়াবার নাই যেন বল।

নিদাঘ-তপন-শুষ্ক ম্রিয়মাণ লতার মতন

ক্রমে অবসন্ন হয়ে পড়িতেছি ভূমিতে লুটায়ে,

চারিদিকে চেয়ে দেখি শ্রান্ত আঁখি করি উন্মীলন --

বন্ধুহীন-প্রাণহীন-জনহীন মরু মরু মরু --

আঁধার -- আঁধার সব -- নাই জল নাই তৃণ তরু,

নির্জীব হৃদয় মোর ভূমিতলে পড়িছে লুটায়ে;

এসো দেবি, এসো, মোরে

রাখো এ মূর্ছার ঘোরে;

বলহীন হৃদয়েরে দাও দেবি, দাও গো উঠায়ে।

দাও দেবি সে ক্ষমতা, ওগো দেবি, শিখাও সে মায়া --

যাহাতে জ্বলন্ত, দগ্ধ, নিরানন্দ মরুমাঝে থাকি

হৃদয় উপরে পড়ে স্বরগের নন্দনের ছায়া --

শুনি সুহৃদের স্বর থাকিলেও বিজনে একাকী।

দাও দেবি সে ক্ষমতা, যাহে এই নীরব শ্মশানে,

হৃদয়-প্রমোদ-বনে বাজে সদা আনন্দের গীত।

মুমূর্ষু মনের ভার --

পারি না বহিতে আর --

হইতেছি অবসন্ন -- বলহীন -- চেতনা-রহিত --

অজ্ঞাত পৃথিবী-তলে -- অকর্মণ্য-অনাথ-অজ্ঞান --

উঠাও উঠাও মোরে -- করহ নূতন প্রাণ দান।

পৃথিবীর কর্মক্ষেত্রে যুঝিব -- যুঝিব দিবারাত --

কালের প্রস্তরপটে লিখিব অক্ষয় নিজ নাম।

অবশ নিদ্রায় পড়ি করিব না এ শরীর পাত,

মানুষ জন্মেছি যবে করিব কর্মের অনুষ্ঠান।

দুর্গম উন্নতিপথে পৃথ্বীতরে গঠিব সোপান,

তাই বলি দেবি --

সংসারের ভগ্নোদ্যম, অবসন্ন, দুর্বল পথিকে

করো গো জীবন দান তোমার ও অমৃত-নিষেকে।

 

 

  বালক, চৈত্র, ১২৯২