৮৩    


           কথা ছিল এক-তরীতে কেবল তুমি আমি

              যাব   অকারণে ভেসে কেবল ভেসে,

           ত্রিভুবনে জানবে না কেউ আমরা তীর্থগামী

              কোথায়     যেতেছি কোন্‌ দেশে সে কোন্‌ দেশে।

                      কূলহারা সেই সমুদ্র-মাঝখানে

                      শোনাব গান একলা তোমার কানে,

                      ঢেউয়ের মতন ভাষা-বাঁধন-হারা

               আমার            সেই রাগিণী শুনবে নীরব হেসে।

 

       আজো সময়  হয় নি কি তার, কাজ কি আছে বাকি।

              ওগো  ওই-যে সন্ধ্যা নামে সাগরতীরে।

       মলিন আলোয় পাখা মেলে সিন্ধুপারের পাখি

              আপন      কুলায়-মাঝে সবাই এল ফিরে।

                       কখন তুমি আসবে ঘাটের 'পরে

                       বাঁধনটুকু কেটে দেবার তরে।

                       অস্তরবির শেষ আলোটির মতো

              তরী    নিশীথমাঝে যাবে নিরুদ্দেশে।

 

 

  বোলপুর, ৩০ জ্যৈষ্ঠ, ১৩১৭