Home > Verses > বিচিত্রিতা > যাত্রা

যাত্রা    


রাজা করে রণযাত্রা,

                  বাজে ভেরি, বাজে করতাল--

কম্পমান বসুন্ধরা।

                  মন্ত্রী ফেলি ষড়যন্ত্রজাল

রাজ্যে রাজ্যে বাধায় জটিল গ্রন্থি।

                                  বাণিজ্যের স্রোত

ধরণী বেষ্টন করে জোয়ার-ভাঁটায়।

                                  পণ্যপোত

ধায় সিন্ধুপারে-পারে।

                  বীরকীর্তিস্তম্ভ হয় গাঁথা

লক্ষ লক্ষ মানবকঙ্কালস্তূপে,

                        ঊর্ধ্বে তুলি মাথা

চূড়া তার স্বর্গ-পানে হানে অট্টহাস।

                                  পণ্ডিতেরা--

আক্রমণ করে বারম্বার

                  পুঁথির-প্রাচীর-ঘেরা

দুর্ভেদ্য বিদ্যার দুর্গ।

                খ্যাতি তার ধায় দেশে দেশে।

হেথা গ্রামপ্রান্তে নদী বহি চলে প্রান্তরের শেষে

ক্লান্ত স্রোতে।

            তরীখানি তুলি লয়ে নববধূটিরে

চলে দূর পল্লী-পানে।

                সূর্য অস্ত যায়।

                                  তীরে তীরে

স্তব্ধ মাঠ।

          দুরুদুরু বালিকার হিয়া।

                                  অন্ধকারে

ধীরে ধীরে সন্ধ্যাতারা দেখা দেয় দিগন্তের ধারে।

 

 

  ১২ মাঘ, ১৩৩৮