২৮    


নদীর পালিত এই জীবন আমার।

নানা গিরিশিখরের দান

নাড়ীতে নাড়ীতে তার বহে,

নানা পলিমাটি দিয়ে ক্ষেত্র তার হয়েছে রচিত,

প্রাণের রহস্যরস নানা দিক হতে

শস্যে শস্যে লভিল সঞ্চার।

পূর্বপশ্চিমের নানা গীতস্রোতজালে

ঘেরা তার স্বপ্ন জাগরণ।

যে নদী বিশ্বের দূতী

দূরকে নিকটে আনে,

অজানার অভ্যর্থনা নিয়ে আসে ঘরের দুয়ারে।

সে আমার রচেছিল জন্মদিন--

চিরদিন তার স্রোতে

বাঁধন-বাহিরে মোর চলমান বাসা

ভেসে চলে তীর হতে তীরে।

আমি ব্রাত্য, আমি পথচারী,

অবারিত আতিথ্যের অন্নে পূর্ণ হয়ে ওঠে

বারে বারে নির্বিচারে মোর জন্মদিবসের থালি।

 

 

  উদয়ন, ২৩ ফেব্রুয়ারি ১৯৪১ - দুপুর