শুন সখি, বাজত বাঁশি

গভীর রজনী, উজল কুঞ্জপথ,

      চন্দ্রম ডারত হাসি।

দক্ষিণপবনে কম্পিত তরুগণ,

      তম্ভিত যমুনাবারি,

কুসুমসুবাস উদাস ভইল, সখি,

      উদাস হৃদয় হমারি।

বিগলিত মরম, চরণ খলিতগতি,

      শরম ভরম গয়ি দূর,

নয়ন বারিভর, গরগর অন্তর,

      হৃদয় পুলকপরিপূর।

কহ সখি, কহ সখি, মিনতি রাখ সখি,

      সো কি হমারই শ্যাম?

মধুর কাননে মধুর বাঁশরি

      বজায় হমারি নাম?

কত কত যুগ সখি, পুণ্য করনু হম,

      দেবত করনু ধেয়ান,

তব ত মিলল সখি, শ্যামরতন মম,

      শ্যাম পরানক প্রাণ।

           শ্যাম রে,

শুনত শুনত তব মোহন বাঁশি,

      জপত জপত তব নামে,

সাধ ভইল ময় দেহ ডুবায়ব

      চাঁদউজল যমুনামে!

"চলহ তুরিত গতি শ্যাম চকিত অতি,

      ধরহ সখীজন হাত,

নীদমগন মহী, ভয় ডর কছু নহি,

      ভানু চলে তব সাথ।'

 

 

  •  
  •  
  •  
  •  
  •