শান্তিনিকেতন, ৩। ১২। ৩৮


 

বঞ্চিত


                               রাজসভাতে ছিল জ্ঞানী,

                                      ছিল অনেক গুণী।

                                  কবির মুখে কাব্যকথা শুনি

                                      ভাঙল দ্বিধার বাঁধ,

                                  সমস্বরে জাগল সাধুবাদ।

                          উষ্ঞীষেতে জড়িয়ে দিল

                              মণিমালার মান,

                                  স্বয়ং রাজার দান।

                          রাজধানীময় যশের বন্যাবেগে

                              নাম উঠল জেগে।

 

                          দিন ফুরাল। খ্যাতিক্লান্ত মনে

                       যেতে যেতে পথের ধারে

                                  দেখল বাতায়নে,

                          তরুণী সে, ললাটে তার

                                  কুঙ্কুমেরি ফোঁটা,

                          অলকেতে সদ্য অশোক ফোটা।

                                  সামনে পদ্মপাতা,

                          মাঝখানে তার চাঁপার মালা গাঁথা,

                              সন্ধেবেলার বাতাস গন্ধে ভরে।

                       নিশ্বাসিয়া বললে কবি,

                          এই মালাটি নয় তো আমার তরে।

 

 

  •  
  •  
  •  
  •  
  •