১৩০৫


 

আশা


এ জীবনসূর্য যবে অস্তে গেল চলি,

হে বঙ্গজননী মোর, "আয় বৎস' বলি

খুলি দিলে অন্তঃপুরে প্রবেশদুয়ার,

ললাটে চুম্বন দিলে; শিয়রে আমার

জ্বালিলে অনন্ত দীপ। ছিল কণ্ঠে মোর

একখানি কণ্টকিত কুসুমের ডোর

সংগীতের পুরস্কার, তারি ক্ষতজ্বালা

হৃদয়ে জ্বলিতেছিল--তুলি সেই মালা

প্রত্যেক কণ্টক তার নিজ হস্তে বাছি

ধূলি তার ধুয়ে ফেলি শুভ্র মাল্যগাছি

গলায় পরায়ে দিয়ে লইলে বরিয়া

মোরে তব চিরন্তন সন্তান করিয়া।

অশ্রুতে ভরিয়া উঠি খুলিল নয়ন;

সহসা জাগিয়া দেখি, এ শুধু স্বপন!

 

 

  •  
  •  
  •  
  •  
  •