৬৬


এই পশ্চিমের কোণে রক্তরাগরেখা

নহে কভু সৌম্যরশ্মি অরুণের লেখা

তব নব প্রভাতের। এ শুধু দারুণ

সন্ধ্যার প্রলয়দীপ্তি। চিতার আগুন

পশ্চিমসমুদ্রতটে করিছে উদ্‌গার

বিস্ফুলিঙ্গ, স্বার্থদীপ্ত লুব্ধ সভ্যতার

মশাল হইতে লয়ে শেষ অগ্নিকণা।

এই শ্মশানের মাঝে শক্তির সাধনা

তব আরাধনা নহে হে বিশ্বপালক।

তোমার নিখিলপ্লাবী আনন্দ-আলোক

হয়তো লুকায়ে আছে পূর্বসিন্ধুতীরে

বহু ধৈর্যে নম্র স্তব্ধ দুঃখের তিমিরে

সর্বরিক্ত অশ্রুসিক্ত দৈন্যের দীক্ষায়

দীর্ঘকাল, ব্রাহ্ম মুহূর্তের প্রতীক্ষায়।

 

 

  •  
  •  
  •  
  •  
  •