৮০


হে অনন্ত, যেথা তুমি ধারণা-অতীত

সেথা হতে আনন্দের অব্যক্ত সংগীত

ঝরিয়া পড়িছে নামি, অদৃশ অগম

হিমাদ্রিশিখর হতে জাহ্নবীর সম।

সে ধ্যানাভ্রভেদী শৃঙ্গ, যেথা স্বর্ণলেখা

জগতের প্রাতঃকালে দিয়েছিল দেখা

আদি অন্ধকার-মাঝে, যেথা রক্তচ্ছবি

অস্ত যাবে জগতের শ্রান্ত সন্ধ্যারবি

নব নব ভুবনের জ্যোতির্বাষ্পরাশি

পুঞ্জ পুঞ্জ নীহারিকা যার বক্ষে আসি

ফিরিছে সৃজনবেগে মেঘখন্ডসম

যুগে যুগান্তরে--চিত্তবাতায়ন মম

সে অগম্য অচিন্ত্যের পানে রাত্রিদিন

রাখিব উন্মুক্ত করি হে অন্তবিহীন।

 

 

  •  
  •  
  •  
  •  
  •