৪২


সেই তো প্রেমের গর্ব ভক্তির গৌরব।

সে তব অগমরুদ্ধ অনন্ত নীরব

নিস্তব্ধ নির্জন-মাঝে যায় অভিসারে

পূজার সুবর্ণথালি ভরি উপহারে।

তুমি চাও নাই পূজা, সে চাহে পূজিতে--

একটি প্রদীপ হাতে রহে সে খুঁজিতে

অন্তরের অন্তরালে। দেখে সে চাহিয়া,

একাকী বসিয়া আছ ভরি তার হিয়া।

চমকি নিবায়ে দীপ দেখে সে তখন

তোমারে ধরিতে নারে অনন্ত গগন।

চিরজীবনের পূজা চরণের তলে

সমর্পন করি দেয় নয়নের জলে।

বিনা আদেশের পূজা, হে গোপনচারী,

বিনা আহ্বানের খোঁজ--সেই গর্ব তারি।

 

 

  •  
  •  
  •  
  •  
  •