আণ্ডেস জাহাজ,  ৩০ অক্টোবর, ১৯২৪


 

অবসান


পারের ঘাটা পাঠালো তরী ছায়ার পাল তুলে,

           আজি আমার প্রাণের উপকূলে।

        মনের মাঝে কে কয় ফিরে ফিরে--

বাঁশির সুরে ভরিয়া দাও গোধূলি-আলোটিরে।

সাঁঝের হাওয়া করুণ হোক দিনের অবসানে

                       পাড়ি দেবার গানে।

 

  সময় যদি এসেছে তবে সময় যেন পাই

           নিভৃত খনে আপন-মনে গাই।

       আভাস যত বেড়ায় ঘুরে মনে--

  অশ্রুঘন কুহেলিকায় লুকায় কোণে কোণে--

আজিকে তারা পড়ুক ধরা, মিলুক পূরবীতে

                      একটি সংগীতে।

 

সন্ধ্যা মম,কোন্‌ কথাটি প্রাণের কথা তব --

           আমার গানে, বলো, কী আমি কব।

      দিনের শেষে যে ফুল পড়ে ঝরে

তাহারি শেষ নিশ্বাসে কি বাঁশিটি নেব ভরে?

অথবা বসে বাঁধিব সুর যে তারা ওঠে রাতে

             তাহারি মহিমাতে।

 

সন্ধ্যা মম, যে পার হতে ভাসিল মোর তরী

           গাব কি আজি বিদায়গান ওরই।

        অথবা সেই অদেখা দূর পারে

   প্রাণের চিরদিনের আশা পাঠাব অজানারে?

বলিব -- যত হারানো বাণী তোমার রজনীতে

                  চলিনু খুঁজে নিতে।

 

 

  •  
  •  
  •  
  •  
  •