উদয়ন, ২ ডিসেম্বর-প্রাতে, ১৯৪০


 

৩৪


যখন বীণায় মোর আনমনা সুরে

গান বেঁধেছিনু বসি একা

তখনো যে ছিলে তুমি দূরে,

দাও নাই দেখা;

কেমনে জানিব, সেই গান

অপরিচয়ের তীরে তোমারেই করিছে সন্ধান।

দেখিলাম, কাছে তুমি আসিলে যেমনি

তোমারি গতির তালে বাজে মোর এ ছন্দের ধ্বনি;

মনে হল, সুরের সে মিলে

উচ্ছ্বসিল আনন্দের নিশ্বাস নিখিলে।

বর্ষে বর্ষে পুষ্পবনে পুষ্পগুলি ফুটে আর ঝরে

এ মিলের তরে।

কবির সংগীতে বাণী অঞ্জলি পাতিয়া আছে জাগি

অনাগত প্রসাদের লাগি।

চলে লুকাচুরি খেলা বিশ্বে অনিবার

অজানার সাথে অজানার।

 

 

  •  
  •  
  •  
  •  
  •