Home > Stories > লিপিকা > পুরোনো বাড়ি

পুরোনো বাড়ি    


একদিন ভোররাত্রে ঐদিকে মেয়ের গলায় কান্না উঠল। শুনি, বাড়ির যেটি শেষ ছেলে, শখের যাত্রায় রাধিকা সেজে যার দিন চলত, সে আজ আঠারো বছরে মারা গেল।

 

কদিন মেয়েরা কাঁদল, তার পরে তাদের আর খবর নেই।

 

তার পরে সকল দরজাতেই তালা পড়ল।

 

কেবল উত্তর দিকের সেই একখানা অনাথা দরজা ভাঙেও না, বন্ধও হয় না; ব্যথিত হৃৎপিণ্ডের মতো বাতাসে ধড়াস ধড়াস করে আছাড় খায়।