Home > Verses > সন্ধ্যাসংগীত >     পরাজয়-সঙ্গীত

    পরাজয়-সঙ্গীত    


    ভালো করে যুঝিলি নে, হল তোরি পরাজয়--

    কী আর ভাবিতেছিস, ম্রিয়মাণ, হা হৃদয়!

        কাঁদ্‌ তুই, কাঁদ্‌ ,হেথা আয়,  

        একা বসে বিজনে বিদেশে।

জানিতাম জানিতাম হা রে

        এমনি ঘটিবে অবশেষে।

    সংসারে যাহারা ছিল সকলেই জয়ী হল,

        তোরি শুধু হল পরাজয়--

    প্রতি রণে প্রতি পদে একে একে ছেড়ে দিলি

        জীবনের রাজ্য সমুদয়।

        যতবার প্রতিজ্ঞা করিলি

        ততবার পড়িল টুটিয়া,

        ছিন্ন আশা বাঁধিয়া তুলিলি

        বার বার পড়িল লুটিয়া ।

        "সান্ত্বনা সান্ত্বনা" করি ফিরি

        সান্ত্বনা কি মিলিল রে মন?

        জুড়াইতে ক্ষত বক্ষঃস্থল

        ছুরিরে করিলি আলিঙ্গন।

        ইচ্ছা,সাধ, আশা যাহা ছিল

        অদৃষ্ট সকলি লুটে নিল।

    মনে হইতেছে আজি       জীবন হারায়ে গেছে,

      মরণ হারায়ে গেছে হায়!

    কে জানে এ কী এ ভাব? শূন্যপানে চেয়ে আছি

                মৃত্যুহীন মরণের প্রায়।

    পরাজিত এ হৃদয়      জীবনের দুর্গ মম

                মরণে করিল সমর্পণ,

                তাই আজ জীবনে মরণ!

    জাগ্‌ জাগ্‌ জাগ্‌ ওরে,  গ্রাসিতে এসেছে তোরে

                নিদারুণ শূন্যতার ছায়া,

                আকাশ-গরাসী তার কায়া।

    গেল তোর চন্দ্র সূর্য, গেল তোর গ্রহ তারা,

                গেল,তোর আত্ম আর পর।

                এই বেলা প্রাণপণ কর্‌।

                এইবেলা ফিরে দাঁড়া তুই,

                স্রোতোমুখে ভাসিস নে আর।

                যাহা পাস আঁকড়িয়া ধর্‌--

                সম্মুখে অসীম পারাবার,

                সম্মুখেতে চির অমানিশি,

                সম্মুখেতে মরণ বিনাশ!

               গেল, গেল, বুঝি নিয়ে গেল

     আবর্ত করিল বুঝি গ্রাস!