শান্তিনিকেতন, ২৮ পৌষ, ১৩০৯


 

২০


এসো, বসন্ত, এসো আজ তুমি

আমারও দুয়ারে এসো।

ফুল তোলা নাই, ভাঙা আয়োজন,

নিবে গেছে দীপ, শূন্য আসন,

আমার ঘরের শ্রীহীন মলিন

দীনতা দেখিয়া হেসো।

তবু, বসন্ত, তবু আজ তুমি

আমারও দুয়ারে এসো।

আজিকে আমার সব বাতায়ন

রয়েছে, রয়েছে খোলা।

বাধাহীন দিন পড়ে আছে আজ,

নাই কোনো আশা, নাই কোনো কাজ,

আপনা-আপনি দক্ষিণবায়ে

দুলিছে চিত্তদোলা,

শূন্য ঘরে সব বাতায়ন

আজিকে রয়েছে খোলা।

কত দিবসের হাসি ও কান্না

হেথা হয়ে গেছে সারা।

ছাড়া পাক তারা তোমার আকাশে,

নিশ্বাস পাক তোমার বাতাসে,

নব নব রূপে লভুক জন্ম

বকুলে চাঁপায় তারা।

গত দিবসের হাসি ও কান্না

যত হয়ে গেছে সারা।

আমার বক্ষে বেদনার মাঝে

করো তব উৎসব।

আনো তব হাসি, আনো তব বাঁশি,

ফুলপল্লব আনো রাশি রাশি,

ফিরিয়া ফিরিয়া গান গেয়ে যাক

যত পাখি আছে সব।

বেদনা আমার ধ্বনিত করিয়া

করো তব উৎসব।

সেই কলরবে অন্তর-মাঝে

পাব, পাব আমি সাড়া।

দ্যুলোকে ভূলোকে বাঁধি এক দল

তোমরা করিবে যবে কোলাহল,

হাসিতে হাসিতে মরণের দ্বারে

বারে বারে দিবে নাড়া

সেই কলরবে অন্তর-মাঝে

পাব, পাব আমি সাড়া।

 

 

  •  
  •  
  •  
  •  
  •